Oops! It appears that you have disabled your Javascript. In order for you to see this page as it is meant to appear, we ask that you please re-enable your Javascript!

শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০১৯, ০৯:২৮ পূর্বাহ্ন

‘ডাক্তারি করুন, গাদ্দারি করবেন না, পরিণতি খারাপ হবে’

‘ডাক্তারি করুন, গাদ্দারি করবেন না, পরিণতি খারাপ হবে’

তাসমান চৌধুরী,কক্সবাজারঃ

কক্সবাজার সদর হাসপাতালকে নিয়ে আপনারা অনেক ছিনিমিনি খেলেছেন। এটা আর একটি বারও করতে দেয়া হবে না। ভবিষ্যতে যদি আবারো এক রকম অমানবিক ও নিষ্ঠুর আচরণ করেন তাহলে আপনাদের কক্সবাজার থেকে বিতাড়িত করা হবে। অনেক হয়েছে, আমাদের ধৈর্য্যের সীমা শেষ হয়ে গেছে। তাই স্পষ্ট করে বলে রাখছি- ডাক্তারি করুন, গাদ্দারি করবেন না। যদি তা করেন তাহলে পরিণতি খুব খারাপ হবে।

বৃহস্পতিবার (১১ এপ্রিল) সকাল ১১টায় কক্সবাজার জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের চত্বরে এই মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ বক্তারা এই হুঁশিয়ারী দিয়েছেন। ‘আমরা কক্সবাজারবাসী’র সমন্বয়ক নাজিম উদ্দীনের সভাপতিত্বে ও সমন্বয়ক কলিম উল্লাহর পরিচালনায় এই মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

কথায় কথায় চিকিৎসা বন্ধ, রোগীদের সাথে খারাপ ব্যবহার, দায়িত্ব পালনে অবহেলা, দাম্ভিকতা প্রদর্শনসহ সব ধরণের অনৈতিক কাজ থেকে বিরত হতে কক্সবাজার সদর হাসপাতালের চিকিৎসকের হুঁশিয়ারী দিয়েছেন কক্সবাজারের সাধারণ মানুষ। একই সাথে ইন্টার্ন চিকিৎসক কর্তৃক রোগী ও স্বজনদের মারধর, পুলিশের হাতে সোপর্দ ও হয়রানিমূলক মামলার প্রতিবাদ জানানো হচ্ছে। এসব হাসপাতালের চলমান এসব সমস্যা নিরসন ও সুষ্ঠু পরিবেশ নিশ্চিত করতে আয়োজিত এক মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশে কক্সবাজার সাধারণ মানুষ প্রতিবাদ জানিয়েছেন। তা না হলে কক্সবাজার ঐক্যবদ্ধ হয়ে অপকর্মকারী চিকিৎসকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে বলেও হুঁশিয়ারি করা হয়েছে।

সভায় বক্তারা বলেন, দীর্ঘদিন ধরে ইন্টার্ন চিকিৎসহ চিকিৎসকেরা কক্সবাজার সদর হাসপাতালকে জিম্মি করে রেখেছে। কথায় কথায়, যখন-তখন তারা চিকিৎসা বন্ধ করে দিয়ে হাসপাতালকে অচল করে দিচ্ছে। রোগীর স্বজন কর্তৃক হামলার দোহাই দিয়ে বার বার এই মানবতা বিরোধী অপরাধ করছে। কিন্তু প্রতিটি ঘটনায় দেখা যায়, রোগীর স্বজনদের চেয়ে সংশ্লিষ্ট চিকিৎসকদের অপরাধ বেশি। ভুল চিকিৎসা, চিকিৎসায় অবহেলা, রোগী ও স্বজনদের সাথে অসদাচারণের কারণে মূলক এই অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটছে। বিশেষ করে ইন্টার্ন চিকিৎসকেরা প্রতিনিয়ত এই অপরাধ করছে। কিন্তু নিয়মিত চিকিৎসক ও বিএমএ’র নেতারা এসব ইন্টার্ন চিকিৎসক নামক মাস্তানদের পক্ষ নিয়ে চিকিৎসা বন্ধ করে দেয়।

চিকিৎসকদের উদ্দেশ্য করে বক্তারা বলেন, ‘জনগণের ঘাম ঝরানো টাকা দিয়ে চিকিৎসক হয়েছেন আপনারা। বাপের টাকা দিয়ে আপনারা এত বিপুল টাকা ব্যয় করে আপনারা ডাক্তারি পড়তে পারতেন না। কিন্তু পেশায় ঢুকে আপনারা জনগণের কথা ভুলে যান। মনে রাখবেন আপনারা জনগণের সেবক। তাই জনগণের সাথে ভালো ব্যবহার করে মানবিক আচরণ করে চিকিৎস সেবা দিতে। সংকটকালীন মুহূর্তে কোনো রোগী বা স্বজনের মানসিক অবস্থা স্বাভাবিক থাকে না। অথচ সেময় আপনারা (চিকিৎসকেরা) খারাপ আচরণ করেন। তখন অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে উপায় থাকে না।

বিস্তারিত আসছে—–

মন্তব্য করুন

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

বিজ্ঞাপনঃ


কক্সবাজার নিউজ বিডি (সিএনবি)তে ব্যবহৃত সকল সংবাদ ও আলোকচিত্র বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা সম্পূর্ণ বেআইনি। স্বত্বাধিকারী কর্তৃক coxsbazarnewsbd.com এর সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত (নিবন্ধন নম্বর-১০০৬৮)
Desing & Developed BY MONTAKIM